রাজাপুরে পাওনা টাকা চাওয়ার অপরাধে একাধিকবার সন্ত্রাসী হামলার শিকার পাওনাদার

Spread the love

ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি:

ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলায় পাওনা টাকা চাওয়ার অপরাধে সন্ত্রাসী কায়দায় এক ব্যবসায়ীকে একাধিক বার হামলা করে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের কানুদাসকাঠি এলাকার আকন বাড়ির মৃত শামসের উদ্দিন আকনের ছেলে মোঃ মোজাম্মেল আকন (৫০) এর নিকট হইতে একটি ভ্যানগাড়ি ভাড়া নেয় একই এলাকার মোঃ আনছার হাওলাদার এর ছেলে মোঃ ইউসুফ। ভ্যানগাড়ি ভাড়া নেওয়ার পর অনেক দিন ভাড়া না দেওয়ায় অনেক টাকা ভাড়া পাওনা হয়ে যায়।

মোজাম্মেল আকন পাওনা টাকা ইউসুফের কাছে চাইলে টাকা দেওয়ার কথা বলে ঘুরাঘুরি করতে শুরু করে বিধায় বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার সহ গন্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে ইউসুফ ক্ষিপ্ত হয়ে ইউসুফ সহ তার সহচর মোঃ জায়েদ হোসেন, মোঃ সাগর ও মোঃ রতন চলতি বছরের ১০ মে রাত অনুমান সাড়ে ৯টার দিকে দেশিয় অস্ত্র নিয়ে মোঃ মোজাম্মেল আকনের বসত বাড়িতে প্রবেশ করে বসত ঘর ভাঙ্গচুর, মালামাল লুটপাট সহ হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করো। এর কিছু দিন পর ২৪মে আবার হামলা চালিয়ে মোঃ মোজাম্মেল আকনকে গুরুতর জখম করে ইউসুফ সহ তার সহচররা।এই হামলার ঘটনায় রাজাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন মোজাম্মেল যার মামলা নং৩৯। মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিতে থাকে ইউসুফ সহ সহচররা, মামলা না তুলে নেয়ায় ও পাওনা টাকা চাওয়ায় চলতি সময়ে (২৪ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার দুপুরে মোঃ মোজাম্মেল আকনের বাড়িতে অনুষ্ঠানের জন্য ভান্ডারিয়া উপজেলার বাজারে মালামাল কিনতে যাওয়ার পথের মধ্যে হাজি বাড়ির এলাকায় পৌছলে মোঃ রতন এর ছেলে মোঃ সাগর ও তার মামা মোঃ ইকবাল মল্লিক সহ তাদের সহচরদের নিয়ে মোঃ মোজাম্মেল এর উপর নির্মম হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করে ও মোজাম্মেল এর সাথে থাকা টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা গুরুতর জখম অবস্থায় আহত মোজাম্মেল আকনকে উদ্ধার করে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করেন।

Leave a Comment