বরিশালে ঘরে আশ্রয় নিয়ে ৭০ বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণ, একঘন্টায় ধর্ষক গ্রেফতার

Spread the love

ডেস্ক রিপোর্ট:

রিশালের বাবুগঞ্জে পুলিশের হাত থেকে বাঁচার কথা বলে ঘরে আশ্রয় নিয়ে ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধাকে ধর্ষণ করেছে মাদকাসক্ত যুবক। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের এক ঘন্টার মধ্যেই অভিযুক্ত ধর্ষক জাকির সিকদারকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাত ২ টার দিকে উপজেলার উত্তর আগরপুর গ্রামে ওই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতার অভিযুক্ত ধর্ষক জাকির সিকদার আগরপুর গ্রামের খালেক সিকদারের ছেলে এবং মাদকাসক্ত একজন জুয়াড়ি।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা বৃদ্ধার ছেলে বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে বাবুগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজানুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহার, পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছেলে-মেয়েরা ঢাকায় থাকার কারণে ওই বৃদ্ধা উত্তর আগরপুর গ্রামের বাড়িতে একা থাকতেন। এই সুযোগে প্রায়ই স্থানীয় মাদকাসক্ত ও জুয়াড়ি জাকির সিকদার ও তার সহযোগীরা তাদের বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি টিনের ঝুপড়ি মধ্যে তাসের আড্ডা বসাতো। সেখানে বসে জুয়া খেলা ছাড়াও মাদকসেবন করতো তারা। বিষয়টি জানতে পেরে কিছুদিন আগে জাকির সিকদারকে বকাঝকা করেন এবং পরবর্তীতে বাড়িতে এসে আবার নেশা ও জুয়ার আসর বসালে পুলিশে জানিয়ে দেবার হুমকি দেন গৃহকর্ত্রী ওই বৃদ্ধা। এতে ক্ষিপ্ত হলেও তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া দেখায়নি জাকির সিকদার।

পুলিশ জানায়- গত ২২ জুন দিবাগত রাত ১০টার দিকে বাড়ির বাইরে দাঁড়িয়ে বৃদ্ধাকে চাচী বলে সম্মোধন করে বাইরে ডাকে সে। ডাক শুনে বাইরে বের হলে পূর্বের সকল ঘটনার জন্য বৃদ্ধার কাছে ক্ষমা চায় জাকির সিকদার। এবং পুলিশ তাকে ধাওয়া করেছে মিথ্যা অজুহাত দেখিয়ে বাকি রাতটুকু ওই বৃদ্ধার বাড়িতে থাকার জন্য আশ্রয় চায়।

জুয়া ও মাদক ছেড়ে ভালো হয়ে যাওয়ার পরে পুলিশ এখন তাকে তাড়ায়, -এমন কথা শুনে সরল বিশ্বাস করে ওই রাতে জাকির সিকদারকে নিজের শয়নকক্ষের পাশের একটি কক্ষে থাকতে দেন ৭০ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধা মা। এরপর রাত ২টার দিকে বখাটে ও মাদকাসক্ত জাকির তার পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী বৃদ্ধার গলায় ধারালো অস্ত্র ঠেকিয়ে ধর্ষণ করে। ঘটনার আকস্মিকতায় বৃদ্ধা মা হতবিহ্বল ও অসুস্থ হয়ে পড়লে ধর্ষণের পরে রাতেই পালিয়ে যায় লম্পট জাকির সিকদার।

এদিকে ঘটনার পরে বৃদ্ধার ডাক-চিৎকার শুনে প্রতিবেশী ও স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে আগরপুর উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান। এসময় প্রতিবেশীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে পরে বৃদ্ধার ছেলে মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বাড়ি আসেন এবং বাবুগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন।

বৃদ্ধা মাকে ধর্ষণের অভিযোগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ছেলে আক্কাস আলী খান বাদী হয়ে বাবুগঞ্জ থানায় ওই মামলাটি করেন। মামলাটি নথিভুক্ত হওয়ার একঘন্টার মাথায় বাবুগঞ্জ থানার ওসি মো. মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে আগরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একটি দল অভিযান চালিয়ে গৌরনদীর সরিকল এলাকা থেকে অভিযুক্ত ধর্ষক জাকির সিকদারকে গ্রেপ্তার করেন।

বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজানুর রহমান জানান, ‘ধর্ষণ মামলা দায়েরের একঘন্টার মধ্যেই মামলার একমাত্র অভিযুক্ত ধর্ষক জাকির সিকদারকে আটক করা হয়েছে। পাশাপাশি ভিকটিম বৃদ্ধা মাকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। বুধবার বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে তার প্রয়োজনীয় ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হবে।’

Leave a Comment