ফেসবুকে ছবি দেখে ধর্ষককে ধরে গণধোলাই

Spread the love

ডেস্ক রিপোটঃ টাঙ্গাইলে ধর্ষণ মামলার এক আসামিকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে জনতা। বুধবার দুপুরে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার পাকুটিয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গণধোলাইয়ের শিকার ও ধর্ষণ মামলার আসামি শহীদুল ইসলাম মধুপুর উপজেলার আলোকদিয়া ইউনিয়নের বেকারকোনা গ্রামের শাহজাহান ওরফে ইয়াজউদ্দীন দর্জির ছেলে।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, শনিবার প্রাথমিক বিদ্যালয় পড়ুয়া এক শিশুকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে নির্মাণাধীন পাকা বাড়িতে নিয়ে যায় শহীদুল। সেখানে শিশুটিকে ধর্ষণ করে শহীদুল। এরপর শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায়। শিশুটির কান্নার শব্দ শুনে আশপাশের লোকজন উদ্ধার করে প্রথমে মধুপুর উপজেলা হাসপাতাল এবং পরে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষা করা হয়।

এ ঘটনায় মধুপুর থানায় ধর্ষণ মামলা হয়। এরপর বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় শহীদুল। কিন্তু তার সন্ধান চেয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়া হয়। পরে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। এরই প্রেক্ষিতে পাকুটিয়া বাসস্ট্যান্ডে ঘোরাঘুরি করার সময় ধর্ষক শহীদুলকে দেখে ফেলে স্থানীয়রা। পরে তাকে ধরে গণধোলাই দেয় জনতা।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মধুপুর থানা পুলিশের ওসি শফিকুল ইসলাম বলেন, শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি শহীদুলকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Comment