পটুয়াখালীতে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা, স্বামী গ্রেপ্তার

Spread the love

ডেস্ক রিপোট :: পটুয়াখালী- আমতলী- কুয়াকাটা মহাসড়কে আমতলীর মহিষকাটায় বাসের ধাক্কায় তিন মোটর সাইকেল আরোহীর মধ্যে ১ জন নিহত ও ২ জন আহত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের সূত্রে জানাগেছে, শুক্রবার রাতে ঝালকাঠী থেকে মোটর সাইকেলে করে ভ্রমনে কুয়াকাটা যাচ্ছিল তিন বন্ধু। এরা হলেন ঝালকাঠী সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান শাওন (২৪), সদস্য ছানা মীর (২১) ও মেহেদী হাসান (২০)। রাত ৩ টার দিকে পটুয়াখালী- আমতলী- কুয়াকাটা মহা-সড়কে আমতলীর মহিষকাটা নামক এলাকায় পৌছলে পিছন দিক থেকে ঢাকা থেকে কুয়াকাটার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা নাইট কোচ “কুয়াকাটা এক্সপ্রেস” তাদের মোটর সাইকেলটি ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় মোটর সাইকেলটি ছিটকে রাস্তার পাশে গিয়ে পড়ে দুমড়ে মুরচে যায়। এতে তিন বন্ধু আশিকুর রহমান শাওন, ছানা মীর ও মেহেদী হাসান গুরুত্বর আহত হয়ে রাস্তায় পড়ে থাকে। রাত ৪ টার দিকে কুয়াকাটায় ভ্রমনে আসা একটি মাইক্রোবাস যাত্রীরা তিন বন্ধুকে আহত হয়ে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখেন। তখন তাদের উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে নিয়ে আসেন। আমতলী হাসপাতালেন কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় তিন বন্ধুকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেন। পথিমধ্যে লেবুখালী ফেরীঘাটের কাছাকাছি পৌছলে ছানা মীরের মৃত্যু হয়। অপর দু’জন আশিকুর রহমান শাওন ও মেহেদী হাসানকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত ছানা মীর ঝালকাঠী শহরের কলেজ পাড়ার বাসিন্ধা আঃ রাজ্জাক মীরের পুত্র ও ঝালকাঠী সরকারী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার আলহাজ্ব মোঃ হারুন অর রশিদ সংকটজনক অবস্থায় তিন বন্ধুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেছি।

আহত ঝালকাঠী সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান শাওন মুঠোফোনে বলেন, আমরা তিন বন্ধু শুক্রবার রাত ১২ টার দিকে মোটর সাইকেলে করে কুয়াকাটা যাচ্ছিলাম। পথিমধ্যে পটুয়াখালী- আমতলী- কুয়াকাটা মহা-সড়কের আমতলীর মহিষকাটায় পৌছলে পিছন দিক থেকে কুয়াকাটাগামী নাইট কোচ “কুয়াকাটা এক্সপ্রেস” আমাদের মোটর সাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। আমরা ছিটকে রাস্তার পাশে পড়ে যাই। আমাদেরকে রাতে কুয়াকাটাগামী অপর একটি মাইক্রোবাস আরোহীরা উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে নিয়ে আসে। এর মধ্যে বন্ধু ছানা মীর পথিমধ্যে মারা যায়।

আমতলী থানার ওসি মোঃ আবুল বাশার বলেন, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেবো। মোটর সাইকেলটি উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।

Leave a Comment