ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ১১০০কীট প্রদান করলেন আলোকিত মানুষ সবির হোসেন।

Spread the love

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ


সারাবিশ্ব যখন কোভিড১৯ এর ভয়াবহতা অনুভব করছে,মানুষ যখন নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত বিপন্ন হয় মানবতা,ঠিক সেই সময়ে কিছু মানুষ নিজেকে বিলিয়ে দেয় বিপন্ন মানবতাকে উদ্বারের কাজে,ঝালকাঠির সবির হোসেন ঠিক এমন একজন মানুষ।
ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে যখন কীট সংকটে করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ বন্ধ হয়ে পড়ে ছিলো ঠিক সে সময় এক হাজার একশ কীট দিয়ে সহায়তা করলেন ঝালকাঠির সেই আলোকিত সমাজ সেবক মো: সবির হোসেন।
সোমবার সকালে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের কতৃপক্ষের কাছে সবির হোসেন নিজের অর্থায়নে কীট তুলে দেন। ঝালকাঠি ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাক্তার মো: আবুয়াল হাসান কীট গ্রহণ করেন। *ডাঃমো: আবুয়াল হাসান বলেন, এ কীট পেয়ে করোনার নমুনা সংগ্রহে বিশেষ উপকৃত হলাম। ঝালকাঠি স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে তিনি সমাজ সেবক ছবির হোসেনকে ধন্যবাদ জানান।
সমাজ সেবক সবির হোসেন বলেন, গত তিন দিন ধরে কীট সংকটে সদর হাসপাতালে করোনার নমুনা সংগ্রহ বন্ধ হয়ে পড়ে। বিষয়টি আমি জানতে পারি। এরপর এক হাজার একশ কীট কিনে হাসপাতালে দেই। মানুষের জন্য কিছু করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে। আমি চাই করোনার এই মাহামারীর সময় সমাজের স্বচ্ছল ব্যক্তিরা মানুষের জন্য এগিয়ে আসুক।
জনাব সবির হোসেন বিগত দিনেও এরকম মানবিক কাজে বিভিন্ন ভাবে এগিয়ে এসেছেন
এব্যাপারে ঝালকাঠির সমাজ সেবা মূলক সংগঠন স্বপ্নপূরণ সমাজকল্যাণ সংস্থা sssএর সভাপতি এইচ এম রিয়াজ খান বলেন,সবির হোসেন একজন আলোকিত মানুষ গতবছর ঝালকাঠির হিয়া নামের একটি মেয়ে কে চিকিৎসার জন্য নগদ অর্থ আমার হাতে তুলে দিয়ে সহায়তা করেন, করোনা র এই দূর্যোগ কালিন সময়ে বিভিন্ন ভাবে সাধারণ মানুষের সহায়তা করে যাচ্ছেন,খাদ্য সহায়তা থেকে শুরু করে গৃহ হীন কে গৃহ নির্মাণ করে দিয়েছেন এই মানবিক কর্মী জনাব সবির হোসেন।আমি তার শুভ কামনা ও দীর্ঘায়ু কামনা করি।

Leave a Comment