ঝালকাঠি সদর উপজেলা নির্বাচন স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ রাজ্জাকের নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা ভাংচুর নৌকা প্রতীক প্রার্থীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

Spread the love

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ঃ ঝালকাঠি সদর উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সৈয়দ রাজ্জাক আলী সেলিমের বসত বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট লুৎফুন্নেছা খানম। ঘটনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল রবিবার সন্ধা সাড়ে ৬ টার দিকে আনারস প্রতীকের প্রার্থী সৈয়দ রাজ্জাকের টিএন্ডটি সড়কের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ও তার প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে এ হামলা ভাংচুর করা হয়।
রাত ৮ টায় সৈয়দ রাজ্জাক আলী সেলিম তার প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ রাজ্জাক আলী সেলিম জানান, তার প্রতিপক্ষ নৌকার মিছিল নিয়ে যাবার সময় এ তান্ডব চালিয়েছে। এসময় তার ৩ জন কর্মী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা ইদ্রিস মল্লিক (৪৮) ও মো. শাহিন মল্লিক (৪২) আহত হয়। জিএস জাকির, এনামুল হক জুয়েল ওরফে নাডা জুয়েল ও সেজান এর নেতৃত্বে আকস্মিক ভাবে ফাতেমা কনভেনশন সেন্টারে প্রবেশ করে চেয়ার দিয়ে ভাংচুর শুরু করে। এসময় তারা সৈয়দ রাজ্জাকের বাসভবন ও নির্বাচনী কার্যালয়ে প্রবেশ করে সেখানেও হামলা ও তান্ডব চালায়। এ সময় তিনি ও তার স্ত্রী এবং ভাইসহ কর্মী সমর্থকরা টাইগার স্কুল এলাকায় নির্বাচনী কাজে বাহিরে ছিল। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হতে এসব করাচ্ছে। এ ঘটনার আগে তার বড় ভাইয়ের উপর নৌকা প্রতীকের কর্মীদের হামলার ঘটনায় রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত ভাবে জানিয়ে নিরাপত্তা ও নির্বাচনী কাজ করার নিয়শ্চয়তা দাবি করেছিল। এ বিষয়ে সিসিটিভির ফুটেজ দেখে নিশ্চিত হয়ে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে নৌকা প্রতীক প্রার্থী খান আরিফুর রহমানকে। এ বিষয়ে ঝালকাঠি থানার ওসি শোনীত কুমার গায়েন জানান, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

Leave a Comment