ঝালকাঠি তে করোনা শনাক্তকরণ ল্যাবের দাবীতে মানববন্দ্বন

Spread the love

এইচ,এম,রিয়াজ খান,ঝালকাঠিঃ

৬টি জেলা নিয়ে দক্ষিন অঞ্চলের একটি বৃহৎ জনপদের নাম বরিশাল কিন্তু দুঃখের বিষয় হলেও সত্যি যে প্রায় দের কোটি মানুষের মানুষের করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য মাত্র একটি পি,সি আর ল্যাব যা সত্যি হতাশা জনক,গত ২৫শে জুন ঝালকাঠির একটি সামাজিক সংগঠন স্বপ্নপূরণ সমাজকল্যাণ সংস্থা sss তাদের নিজস্ব ফেসবুক পেইজে সর্বপ্রথম ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পি,সি,আর ল্যাবের দাবী তোলেন। এরপর ঝালকাঠি প্রেস ক্লাব অদ্য ০৮ই জুলাই সকাল ১১ঘটিকায় একই দাবীতে প্রেসক্লাবের সম্মুখে মানববন্দ্বন কর্মসূচি র আয়োজন করেন। স্থানীয় প্রেস ক্লাব আয়োজিত মানববন্ধনে অংশ নিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন), কমিউনিস্ট পার্টি, ছাত্র ইউনিয়ন, বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজ, দুরন্ত ফাউন্ডেশন, ইয়ুথ অ্যাকশন সোসাইটি, রক্ত কনিকা ফাউন্ডেশন, মানব কল্যাণ সোসাইটি, কালের কণ্ঠ শুভসংঘ এবং প্রথম আলো বন্ধুসভা। এছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এ দাবির সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেছে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সচিবের বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন প্রেস ক্লাবের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দত্ত, সাধারণ সম্পাদক মো. আককাস সিকদার, সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মঈন তালুকদার, সুজন সদর উপজেলা সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত দাস হরি, প্রেস ক্লাবের সহসাধারণ সম্পাদক কে এম সবুজ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অলোক সাহা, প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি শাকিল হাওলাদার রনি, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সাধারণ সম্পাদক ও দুরন্ত ফাউন্ডেশনের সভাপতি তাসিন মৃধা অনিক, ৭১’র চেতনা সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মাহফুজা মিষ্টি, রক্ত কনিকার এডমিন মুস্তাফিজুর রহমান প্রীতম তালুকদার, মানব কল্যাণ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা উজ্জল রহমান ও ইয়ুথ এ্যাকশন সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মাহিদুল ইসলাম রাব্বি প্রমুখ। বক্তারা বলেন, ঝালকাঠিতে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩’শ। এ জেলায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের, উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে ৩৪ জন। এ জেলার মানুষের নমুনা সংগ্রহের পরে জেলা সদর থেকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে বিলম্বে রিপোর্ট আসার কারনে ঝুঁঁকিতে রয়েছে ঝালকাঠিবাসী। অনেক রোগী রিপোর্ট পাওয়ার আগেই মৃত্যুবরণ করেছে। তাই অতিদ্রুত এ জেলায় ‘পিসিআর ল্যাব’ স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন বক্তারা

Leave a Comment