ঝালকাঠিতে স্কুল/কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা রাতে পার্কে থাকতে পারবে না পুলিশ সুপার

Spread the love

ঝালকাঠিতে স্কুল/কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা রাতে পার্কে থাকতে পারবে না 
পুলিশ সুপার

ঝালকাঠিতে স্কুল কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা রাতে কোন পার্কে অবস্থান করতে পারবেন না বলে নির্দেশ দিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন। গতকাল ৬জুলাই সোমবার রাত ৮টার সময় ঝালকাঠি জেলা পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন অভিযান পরিচালনা কালে তিনি তার বক্তব্যে এ কথা বলেন। এ সময় তিনি আরো বলেন, ঝালকাঠিতে যাতে কোনো গ্যং লিডার সৃষ্টি হতে না পারে সেদিকে পুলিশের কড়া নজরদারী ও অভিযান অব্যাহত থাকবে। সন্ধ্যার পর সকল ছাত্রছাত্রী বই খাতা কলম নিয়ে পড়ার টেবিলে থাকবে তারা কোন পার্কে বা কোন আড্ডায় থাকতে পারবে না।

এ সময় জেলা পুলিশ সুপার জেলা শহরের বিভিন্ন পার্কে ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করে শিক্ষার্থীদের আটক করেন। রাত ০৮ টা থেকে ১০ টা পর্যন্ত শহরের কয়েকটি পার্কসহ বিভিন্ন স্থানে সন্ধ্যার পর লেখা-পড়া বাদ দিয়ে যত্রতত্র ঘোরা-ফেরা, চায়ের দোকান এবং পার্কে আড্ডারত শিক্ষার্থীদের ঘরমুখি করতে অভিযান চালান। ঝটিকা অভিযানে ঝালকাঠি পৌর মিনিপার্ক, ডিসি পার্ক এবং শিল্পকলা একাডেমী চত্বর থেকে বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীদের আটক করেন।

অব্যাহত অভিযানে রাতে জেলা পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে মোঃ জাহাঙ্গির আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, কাজী মোঃ ছোয়াইব, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, (সদর), এবং এম.এম.মাহমুদ হাসান, পিপিএম (বার), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল ঝালকাঠি সহ অভিযানে ডিবি পুলিশ, এবং ট্রাফিক পুলিশের চৌকস দল ঝালকাঠি গাবখান সেতুর উপরিভাগ সহ এর আসে পাসে অভিযান পরিচালনা করে সেখান থেকেও স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া ছাত্র/ ছাত্রী আটক করে। ৩টি স্পট থেকে আটককৃত ২৬ জন যুবক ও তাদের অভিভাবকদের মুচলেকা নিয়ে রাতেই থানা থেকে ছেড়ে দেয়া হয়। অভিযানের অংশ হিসেবে বিভন্ন যানবাহনের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র দেখেন এ সময় ৫ জন মোটর সাইকেল চালক ও ২ জন মাইক্রোবাস চালকের অনিয়ম পরিলক্ষিত হলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়। এবং কোন কাগজ না থাকায় সেখান থেকে একটি মোটর সাইকেল জব্দ করা হয়। এ সময় ।

এ বিষয় ঝালকাঠি শহরে বসবাসকারী শিমুলিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর ইসলামের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জেলা পুলিশ সুপার মহাদ্বয়ের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, ঝালকাঠি জেলা পুলিশ সুপার মহাদ্বয় এ উদ্যোগ অবশ্যই প্রসংশনীয়। আমাদের স্কুল পড়ুয়া সন্তানেরা যেন খারাপ দিকে ধাবিত হতে না পারে সে জন্য জেলা পুলিশ সুপার মহাদ্বয় যে উদ্যোগ গ্রহন করেছেন সেটা অব্যাহত থাকলে ঝালকাঠিতে আমাদের সন্তানেরা মাদক সহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়াতে পারবেনা বলে আমি মনে করি। আমি শুনেছি গতকাল জেলা পুলিশ সুপার মহাদ্বয় রাতে শহরের বিভিন্ন পার্কে অভিযান পরিচালনা করে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছাত্রদের আটক করে অভিভাবকদের মুছলেকা নিয়ে ছেরে দেয়ার মাধ্যমে ঝালকাঠিতে এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। শুধু তাই নয় পুলিশ সুপার মহাদ্বয় ঝালকাঠিতে যেন কোন গ্যাং সৃষ্টি না হতে পারে সেই দিকে তিনি দৃষ্টি রাখবেন বলেছেন এ জন্য আমি তার এ মহান উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছি সেই সাথে সকল অভিভাবকগন তাদের সন্তাদের প্রতি দৃষ্টি রাখার জন্য অনুরোধ করছি। ঝালকাঠি সুশীল সমাজ পুলিশ সুপার মহাদ্বয়ের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। সেই সাথে শুধু জেলা শহর নয় উপজেলা শহর সমূহের দিকে এ ব্যাপারে তার সুদৃষ্টি কামনা করেন।

Leave a Comment