ঝালকাঠিতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস-২০১৯ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা

Spread the love

ঝালকাঠিতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস-২০১৯ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা

মোঃমনির হোসেন ঝালকাঠি ঃ বায়ু দূষণ রোধে চাই আইনের যথাযথ প্রয়োগ এবং কার্যকর জবাবদিহিতা ” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপন উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও টিআইবি’র সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এর সহযোগিতায় র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ২০ জুন ২০১৯ সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে র‌্যালি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠানে আয়োজন করা হয়। সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা জাহান এর সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আরিফুল ইসলাম। আলোচনায় দিবসের তাৎপর্যের উপর লিখিত ধারণাপত্র পাঠ করেন টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার মো: রোকনুজ্জামান। অনুষ্ঠানে বায়ু দূষণ রোধে নাগরিকদের সচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি এ খাতসমূহে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, নাগরিক অংশগ্রহণ এবং শুদ্ধাচার নিশ্চিতে ১১ দফা সুনির্দিষ্ট দাবিসমূহ উত্থাপন করেন সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), ঝালকাঠির সহ-সভাপতি হেমায়েত উদ্দিন হিমু। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারি বন সংরক্ষক মো: নুরুজ্জামান, চ্যানেল আই এর প্রতিনিধি মানিক রায়, ইসয়েস দলনেতা পার্থ হাওলাদার, সদস্য রুহুল আমিন প্রমুখ। 
১. আলোচনা সভায় বক্তারা বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০১৯ এর মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ‘‘বায়ু দূষণ” এবং শ্লোগান ‘‘আসুন বায়ু দূষণ রোধ করি” বিষয়ে আলোচনা আলোচনা করেন। বক্তারা জাতিসংঘ ঘোষিত ‘‘টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা’’র অভীষ্ট ৩ এর লক্ষমাত্রা ৩.৯ এ বায়ু দূষণ রোধের মাধ্যমে স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমানো এবং অভীষ্ট ১১ এর লক্ষ্যমাত্রা ১১.৬ এর মাধ্যমে বায়ুর গুণগত মান নিশ্চিত করে নগরসমূহে পরিবেশের ওপর নেতিবাচক প্রভাব কমিয়ে আনার এবং অভীষ্ট ১৫ নির্ধারণের মাধ্যমে বন উজাড় রোধ করার মাধ্যমে মরুকরণ রোধ করে পরিবেশ রক্ষার উপর গুরুত্ব প্রদান করেন। আলোচনায় ‘বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি মাত্রার বায়ু দূষণের উৎস ইটভাটা, রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প ও অন্যান্য লাল-তালিকা ভূক্ত অসংখ্য শিল্প কারখানা গড়ে ওঠার ক্ষেত্রে সঠিক নীতিমাল অনুসরণের গুরুত্ব আরোপ করেন। আলোচনায় বিদ্যমান প্রাতিষ্ঠানিক ও আইনি ব্যবস্থার দুর্বলতা ও তার অপপ্রয়োগ, দুর্বল তদারকি, রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতা বাংলাদেশে বায়ু দূষণ সমস্যার উল্লেখযোগ্য কারণ বলে উল্লেখ করা হয় এবং বায়ূ দুষন রোধে একটি টেকসই ব্যবস্থাপনার দাবী জানান হয়। উল্লেখ্য ১৯৭৪ সাল থেকে প্রতি বছর ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালন করা হয়। তবে এ বছর ঐ সময়ে ঈদুল ফিতরের ছুটি থাকায় বাংলাদেশ সরকার ২০ জুন তারিখে দিবসটি উদযাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

Leave a Comment