ঝালকাঠিতে বাবার বসত ঘরে হামলা করে রান্নাঘর বাথরুম ভাংঙ্গায় মেয়ের থানায় অভিযোগ দায়ের

Spread the love

ঝালকাঠিতে বাবার বসত ঘরে হামলা করে রান্নাঘর বাথরুম ভাংঙ্গায় মেয়ের থানায় অভিযোগ দায়ের

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠিতে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে চাচা ও চাচাতো ভাইয়ের হামলায় রান্নাঘর ও বাথরুম ভেঙ্গে ফেলায় মেয়ে বাদী হয়ে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, জমি নিয়ে বিরোধ তথা পূর্ব সত্রুতার জের ধরে বিবাদীরা আমার বাবার ক্রয়কৃত সম্পত্তির ভোগ দখল পূর্বক তার উপর বসত বাড়ী করিয়া দীর্ঘদিন যাবৎ শান্তিপূর্ন ভাবে বসবাস করিয়া আসছে। বিবাদীগন উক্তজমি জোর পূর্বক জবর দখল করার প্রয়াসে বিভিন্ন সময় হুমকি প্দান করিয়া আসছে। গত ১৫মে সকালে পরমহল গ্রামের বাসিন্দা আদম আলী খানের ছেলে ফোরকান খান (৩০), মিঠু খান (২৮) মৃত আইয়ুব আলী খানের ছেলে আক্কেল খান (৪০), আলমগীর খান (৩৭) দেশীয় অস্ত্র দা, শাবল, রড নিয়ে আমার বাড়ীর পিছন দিয়ে বাড়ীর ভিতর প্রবেশ করে এবং আমাদের অকথ্য ভাষায় গালামন্দ করতে করতে আমাদের রান্নাঘরের নিকট এসে রান্নাঘর সহ ব্যবহাত বাথরুম ভাঙ্গতে শুরু করে। আমি আমার মা তাদের ভয়ে চিৎকার করতে থাকি। আমাদের চিৎকারে তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের মারধর করতে এসে আমাদেরকে জীবন নাশের হুমকি দেয়।

এ বিষয় অভিযোগকারী লামিয়া আক্তার সংবাদিকদের জানায়, প্রায় ১৫ বছর পূর্বে ২০০৩ সালে শোলাক্ষিরা গ্রামের মৃত শরীফ আব্দুল লতিফের ওয়ারিশ গনের কাছ থেকে আমার বাবা হিরু খান বাড়ীর নিকটস্থ পরমহল মৌজার জেএল ৫৪, এসএ খতিয়ান ভুক্ত ১২৫,১৩৮,২৩৭ হাল দাগ নং ৮৯৬ সহ নয়টি দাগে মোট ৩১.৫০ শতাংশ জমি ক্রয়করে বসত বাড়ী স্থাপন করে। আমার বাবার ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে বসত ঘর স্থাপন করার সময় কারো কোন বাধা না থাকায় আমরা বহুদিন ধরে শান্তিতেই বসবাস করে আসছিলাম। বিগত দুই বছর পূর্বে থেকে আমাদের একই বাড়ীর চাচাতো ভাই ফোরকান খান,মিঠু খান, আক্কেল খান ও আলোমগীর খান সহ তাদের লোকজন বিভিন্ন সময় আমাদের সাথে জমি নিয়ে বিবাদে লিপ্ত হওয়ার চেষ্টা করতো তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৫জুন তারা আমাদের বাড়ীতে এসে হামলা করে আমাদের ব্যবহারিত রান্নাঘর, বাথরুম ভেঙ্গে ফেলে। বর্তমানে আমরা পরিবারের নারী সদস্যদের রান্না সহ বাথরুম করতে অনেক সমস্যার সম্মুখিন হতে হচ্ছে। বিষয়টি নবগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুল হক আকন্দকে জানালে সে মিমাংশা করার কথা বললে আমরা তার জন্য অপেক্ষা করি। কিন্তু কিছুদিন অতিবাহিত হলেও বিচার না পেয়ে ঝালকাঠি সদর থানায় গত ১৮জুন ঝালকাঠি থানার একটি অভ

Leave a Comment