ঝালকাঠিতে জোয়ার ভাটার খালে বাঁধ ও গোবর ফেলে ২৫টি পরিবারকে জিম্মি করে রেখেছে এমপি খলিল ও ছেলেরা।

Spread the love

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠিতে জোয়ার ভাটার খালে বাঁধ ও গোবর ফেলে ২৫টি পরিবারকে জিম্মি করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে।জেলার নলছিটি উপজেলার ভৈরবাপাশা ইউপি”র লক্ষনকাঠি গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। ১২ এপ্রিল রবিবার বিকাল স্থানীয় বেলায়েত হোসেন,লুৎফর রহমান,ছাব্বির হোসেন,মনির হোসেনসহ প্রায় ৫০জন নারীরা অভিযোগে করে জানান, একই এলাকার মো:খলিলুর রহমান(৫০),ও তার ছেলেরা যথাক্রমে শামিম(২৫),সাদ্দাম(২২),লাদেন(২০)সহ আরও অজ্ঞাত ৪/৫ জন এলজিইডি’র গেজেটভুক্ত সরকারি হেরিম্বন রাস্তার বক্্র কার্লভাট’র সম্মুখের নিয়মিত জোয়ার ভাটা যাওয়ার খালে আকস্মিক বাঁধ দিয়েছে।এতে করে স্থানীয় প্রায় ২৫টি পরিবার জিম্মি হয়ে পড়েছে। পরিবারগুলো জনর্দূভোগে পরিনত হয়েছে।অপরদিকে স্থানীয় হাই মিরার ছেলে ৬টি বিদেশী গরুর ফার্মের সমস্ত গোবর ফেলছে বন্ধ খালে,আর গোবর চলে যাচ্ছে ঐ চারটি পুকুরে।যার ফলে ওজু-গোসল রান্নাসহ সাংসারিক কাজকর্ম করতে পারছে না ভুক্তভোগী পরিবার গুলো।বিশ্বজুরে মহামারি চলছে, মানুষ পরিস্কার পরিছন্ন থাকতে সচেতন,সেখানে রান্নাবান্নায় হাতে গোবর উঠে আসছে। জানা গেছে,মো:খলিলুর রহমান ওরফে এমপি খলিল সরকারি খাল ও রাস্তা দখল করে স্থানীয়দের জানায় ১০০ শত বছর র্পুবে তার বাপ-দাদার ছিল। খলিল আরও জানায়, এখন বাঁধ দিয়েছি এ খালের জমি আমার বাপ-দার আগামীতে বালু ফেলে ভরাট করে ফেলব। এ ধরনের একাধিক অভিযোগ তার বিরুদ্ধে রয়েছে।আরও জানা গেছে, তাঁর ছেলেরা হুমকি দিচ্ছে, কেউ বাঁধের কাছে গেলে ঠাং ভেঙ্গে দিবে।ভুক্তভোগীর আশংকা করছে এলাকায় বালু ভরাটের পাইপ বিদ্যমান রয়েছে,যেকোন সময়য় সরকারি খাল ভরাট করে ফেলতে পারে এমপি খলিল। এ ব্যপারে ভুক্তভোগীরা স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন মাঝিকে জানালে, তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানায় কিন্তু কোন পদক্ষেপ নেয়নি। অত্র ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ কে জানালে তিনি জানান,১৩এপ্রিল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন।

Leave a Comment