ঝালকাঠিতে খাদ্য অধিকার আইনের দাবিতে সমাবেশ

Spread the love

ঝালকাঠিতে খাদ্য অধিকার আইনের দাবিতে সমাবেশ

ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি : ঝালকাঠিতে “বিশ্ব খাদ্য দিবস” উপলক্ষ্যে খাদ্য অধিকার আইনের দাবিতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত। “খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ” এর ঝালকাঠি জেলা শাখা কতৃক অায়োজিত “ক্ষুদামুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মানে সবার জন্য পর্যাপ্ত ও পুষ্টিকর খাদ্য চাই” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে খাদ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে বুধবার (১৬ অক্টোবর’) ঝালকাঠি সদর উপজেলা পরিষদ চত্তরে ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে সবার জন্য পর্যাপ্ত ও পুষ্টিকর খাদ্য নিম্চিতের লক্ষ্যে খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নের দাবিতে জন-যুব জমায়েত, আলোচনা সভা, র‌্যালি, প্রচার -প্রচারণার আয়োজন করার মাধ্যমে
সবার জন্য পর্যাপ্ত খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা এবং খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নের দাবি জানানো হয়।

ঝালকাঠি সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) জেলা কমিটির সহসভাপতি হেমায়েত উদ্দিন হিমুর সভাপতিত্বে সদর উপজেলা পরিষদের ভাইসচেয়ারম্যান মহিন উদ্দিন মঈন তালুকদার, জেলা সিপিবির সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত দাস হরি, জেলা খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ এর সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ হোসাইন আহমেদ কামাল, ওয়ার্ক ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক দীপু লাল দাস, মহিলা সংস্থার প্রশিক্ষক সোনিয়া আক্তার প্রমুখ আলোচনায় অংশ নেন।

আলোচনায় বক্তারা সংবিধান খাদ্য অধিকারকে স্বীকৃতি প্রদান করেছে কিন্তু সময়ের প্রক্ষোপটে এখন প্রয়োজন আইন তৈরি করা। বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে যথেষ্ট অগ্রগতি সাধন করেছে এবং ক্রমাগতভাবে দারিদ্র্যের হার কমে আসার ক্ষেত্রেও ঈর্ষাণীয় সাফল্য অর্জন করেছে। কিন্তু এরপরেও এখনও বাংলাদেশের ২ কোটি ৫০ লক্ষ মানুষ অপুষ্টির শিকার। যার মধ্যে প্রায় ৪৪ শতাংশ নারী রক্ত স্বল্পতায় ভুগছে। উত্তরবঙ্গসহ দারিদ্র্য প্রবণ ৯ জেলায় ও এর বাইরে নদীভাঙ্গন এলাকা, চরাঞ্চল ও হাওড় এলাকা, রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন মহানগরের বস্তিবাসী, চা বাগানের শ্রমিক, হরিজন ও বেদে সম্প্রদায়, হিজড়া সম্প্রদায়, আদিবাসী জনগোষ্ঠীর উল্লেখযোগ্য সংখ্যা এবং প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর অন্যান্য অংশ মানবেতর জীবনযাপন করে। এদের খাদ্য ও পুষ্টির দিকে বিশেষ মনযোগ দিতে এবং তা নিশ্চিতে খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়ন জরুরী বলে মত প্রদান করেন।

Leave a Comment