ছেলের বিয়েতে গিয়ে হবু পুত্রবধূর মাকে নিয়ে উধাও বরের বাবা!

Spread the love

ডেস্ক রিপোর্ট:

হতে পারতেন তারা বেয়াই-বেয়ান। কিন্তু হয়ে গেলেন স্বামী-স্ত্রী। আপাতত বিয়ে না করলেও, সেই দিকেই গড়ালো পরি’স্থিতি। বুঝতে পারছেন না কী বলা হচ্ছে? ছেলের বিয়ে দিতে গিয়ে ছেলের হবু বৌয়ের মাকে নিয়ে পালালেন ছেলেরই বাবা। এই ঘটনায় রীতিমতো শো’রগো’ল পড়ে গিয়েছে। পড়বে নাই বা কেন। এমন ঘটনায় উপস্থিত সকলে তা’জ্জব বনে গিয়েছেন।

কারণ তারা বুঝেই উঠতে পারছেন না যে কীভাবে ছেলের বিয়ে দিতে এসে নিজের বিয়ের দিকে এগোলেন ছেলের বাবা? এই ঘটনায় সব থেকে বেশী ভেঙে পড়েছেন বর এবং বৌ। কারণ তাদের বিয়ের ম’ণ্ডপেই এমন ঘটনা ঘটেছে। তাদের তো মাথায় হাত। কীভাবে সকলের কাছে মুখ দেখাবেন সেটাই ভেবে পাচ্ছেন না। বরের বাবা এবং বৌয়ের মায়ের কোনও খোঁ’জ নেই। তাদের নামে নিখোঁ’জ ডায়রি পর্যন্ত করা হয়েছে। এখন পুরদস্তুর খোঁ’জ চলছে তাদের। পালিয়ে গিয়ে তারা বিয়ে করেছেন কিনা, সেটাও জানা যায়নি।

তবে এর পিছনে পুরনো প্রেমের গল্প শোনা গিয়েছে। বরের বাবার বয়স ৪৮, বৌয়ের মায়ের বয়স ৪৬। তাদের মধ্যে পুরানো বন্ধুত্বের কথা সকলেরই জানা ছিল। তবে সেই বন্ধুত্ব যে আসলে গভীর প্রেম, সেটা জানা ছিল না অনেকেরই। পুরানো বাসিন্দারা জানাচ্ছেন যে এদের মধ্যে প্রেম কাহিনি অনেক পুরনো। নানা কারণে আগে বিয়ে সম্ভব হয়নি। তবে সুযোগ পেয়ে সেটা আর হাত ছাড়া করেননি তারা। ছেলে-মেয়ের বিয়ে দিতে গিয়ে তাদের সামনে চলে আসে দ্বিতীয় এই সুযোগ। সেটাই কাজে লাগিয়েছেন হবু বেয়াই-বেয়ান। আপাতত তারা পলা’তক। ঘটনাটি গুজরাতের সুরাতের। সূত্র : নিউজ ১৮

জয়া বচ্চনকে চিকিৎ’সকরা বললেন, ‘মিস্টার বচ্চনকে শে’ষবার দেখে আসুন

অ’সুস্থ হয়ে পড়েছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের চিত্রনায়িকা রত্না। ঠান্ডাজনিত কারণে তার শ্বা’স-প্রশ্বা’সে সমস্যা হচ্ছে। এজন্য হা*সপা*তালেও ভর্তি হয়েছিলেন।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় হা*সপা*তাল থেকে বাসায় ফিরেছেন এই অ’ভিনেত্রী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এখন আগের চেয়ে ভালো আছেন তিনি। শ্বা’সক’ষ্ট কমেছে। অন্যদিকে রত্না ফেসবুকে লিখেছেন, আমি একদম ভালো হয়ে যাই, আবার একটু বাতাস

লাগলেই লজ্জাবতী গাছের মতো ম’রে যেতে যেতে বেঁ`চে যাই। একি হলো আমা’র!

রোগ-শোক প্রশ্রয় দেয়া আমাকে মানায় না, কিন্তু এবার আর পারছি না। আমি তো অনেকের ভরসাস্থল। দোয়া করবেন আর আমাকে ক্ষমা করবেন।

২০০২ সালে ‘কেন ভালোবাসলাম’ সিনেমা’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে নাম লেখান রত্না। সেলিম আজম পরিচালিত এ সিনেমায় ফেরদৌসের বিপরীতে অ’ভিনয় করেন।

এরপর কাজী হায়াৎয়ের পরিচালনায় ‘ইতিহাস’ সিনেমায় অ’ভিনয় করে প্রশংসিত হন। ক্যারিয়ারের এক যুগে রত্না অর্ধশত চলচ্চিত্রে অ’ভিনয় করেছেন।

পাশাপাশি তামান্না ফিল্মস নামে প্রযোজনা সংস্থা গড়ে তুলেছেন এই অ’ভিনেত্রী। এই প্রতিষ্ঠান থেকে ‘সেদিন বৃষ্টি ছিল’ সিনেমাটি মুক্তি পায়।

সর্বশেষ ২০১৪ সালে এই সিনেমায় নায়িকার ভূমিকায় তাকে দেখা গেছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ ফিল্ম ক্লাব লিমিটেডের নির্বাচনে সর্বাধিক ভোট পেয়ে বিজয়ী হন রত্না।

Leave a Comment