কিশোরগঞ্জে র‌্যাব ও স্থানীয় লোকজনের যৌথ প্রচেষ্টায় আইনজীবীসহ ২মাদক ব্যবসায়ী আটক , ১২শ পিস ইয়াবা উদ্ধার

Spread the love

ইমরান হোসেন, কিশোরগঞ্জ:

কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের বত্রিশ আইনুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন আবাদি বাড়ি (বত্রিশ বিলপার) এলাকায় র‌্যাব ও স্থানীয় লোকজনের প্রচেষ্টায় আইনজীবী জহুরুল ইসলাম (৪৯) ও ঝুমা আক্তার সুবর্ণা (১৪)কে ১ হাজার ২শত পিস ইয়াবাট্যাবলেটসহ আটক করা হয়। জানাযায়, স্থানীয় লোকজন ও র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের যৌথ প্রচেষ্টায় দুপুর সাড়ে ৩টায় উল্লেখিত আইনজীজী বাসার সামনে উল্লেখিত ঝুমা আক্তার সুবর্ণা কে আটক করে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে আইনজীবীর বাসায় অভিযান চালিয়ে উল্লেখিত ইয়াবা উদ্ধার করে। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা বাথরুমের কমোডে ফেলে পানি ফ্লাশ করে আলামত নষ্ট করে দেয় বলে স্থানীয় লোকজন জানায়। স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ বাসাটিতে আটককৃত নারীসহ বেশ কয়েকজন নারী-পুরুষ (মাদক বিক্রেতা) আসা যাওয়া করলে তারা বাঁধা দেয়। ৩দিন পূর্বে এ নিয়ে আইজীবীর সাথে বাকবিতন্ডা হলে স্থানীয়দেরকে ভয়ভীতি দেখায় আটকৃত আইনজীবী । আটককৃত জহুরুল ইসলাম নিকলী উপজেলার ছেত্রা গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের পুত্র। সে বত্রিশ এলাকার উল্লেখিত বাসাটি প্রায় এক বছর পূর্বে ক্রয় করে বসবাস করে আসছে। অপর মাদক ব্যবসায় ঝুমা আক্তার সুবর্ণা সদর উপজেলার যশোদল বানিয়াকান্দি গ্রামের মৃত ফুল মিয়ার কন্যা। র‌্যাব-১৪, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক লে: কমান্ডার এম শোভন খান (বিএন) জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামীদ্বয় মাদক ক্রয়-বিক্রয় এর সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে কিশোরগঞ্জ জেলার সদর থানায় মামলা দায়ের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Leave a Comment